বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৩৫ পূর্বাহ্ন

খবরের শিরোনাম :
বিএনপি’র বিভাগীয় সমাবেশের দু’দিন আগেই রংপুরে পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষনা মটর মালিক সমিতি। ধর্মঘট উপেক্ষা করে রংপুরে বিভাগীয় সমাবেশ সফল করার ঘোষনা বিএনপি’র, সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন ব্যবসার পরিবেশ দিয়েছি, আপনারা দেশের কথা ভাবুন— ব্যবসায়ীদের প্রধানমন্ত্রী আ.লীগ প্রার্থীকে হারিয়ে জাপা নেতা জয়ী হারাগাছে মাদ্রাসার কাজ বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগ বহিষ্কৃত সেনা সদস্যের বিরুদ্ধে। সমাধান দিলো পুলিশ, হরিজন সেই কিশোরকে মিষ্টি খাওয়ানো হলো রংপুর সিটি নির্বাচনে মোস্তফাকে জাপার মেয়র প্রার্থী ঘোষণা রংপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র আব্দুর রউফ মানিককে জাপা থেকে অব্যাহতি পছন্দের ছেলেকে বিয়ে করায়, পরিবারের হয়রানি থেকে বাঁচতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন দম্পতি পাগলাপীর বাইক রাইডার্স এর মাধ্যমে নিরাপদ বৃদ্ধাশ্রমে খাবার বিতরণ।
পাওনা টাকার দাবীতে তিনদিন ধরে পাওনাদারের বাড়িতে অনশন করছেন লক্ষীপুরের এক ব্যাবসায়ি।

পাওনা টাকার দাবীতে তিনদিন ধরে পাওনাদারের বাড়িতে অনশন করছেন লক্ষীপুরের এক ব্যাবসায়ি।

নিজস্ব প্রতিবেদকঃরংপুর নগরীর ৩২নং ওয়ার্ডে পাওনা টাকা আদায়ের দাবীতে পাওনাদারের বাড়িতে তিন দিন ধরে অবস্থান করছেন লক্ষীপুর জেলার চন্দ্রগঞ্জ থানার এক ব্যাবসায়ি
।খোক নিয়ে জানা গেছে ওই ব্যাবসায়ির বাড়ি লক্ষীপুর জেলার চন্দ্রগঞ্জ থানার এক গ্রামে

ব্যাবসায়িক লেনদেনের এক পর্যায়ে রংপুর নগরীর ৩২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ইসমাইল হোসেন সাথে ১২ বছর আগে ২৫ লক্ষ টাকা লেনদেন হয় ঐ ব্যাবসায়ির।বর্তমানে ওই ব্যাবসায়ি সব কিছু হারিয়ে বর্তমানে নিশ্বঃ তাই পাওনা টাকা পেতে লক্ষীপুর থেকে গত ১৮ আগষ্ট রংপুরে আসে ওনার আশে, আসার খবর পেয়ে পাওনাদার ইসলামইল হোসেন গা ঢাকা দিয়েছেন।তাই তার বাড়িতেই অনশন শুরু করেছেন লক্ষীপুরে শেই ব্যাবসায়ি।

মাহামুদ আইয়ুব মোকছেদ জানান ১২ বছর আগে ব্যাবসা করতেন ইসমাইল হোসেনের সাথে তিনি ব্যাবসায় বিভিন্ন সময় তাদের মধে টাকা লেনদেন হতো যার ডকুমেন্ট তার কাছে আছে কিন্তু ১২ বছর ধরে টাকা চাইতে চাইতে আজ আমি নিশ্বঃ তাই কোন উপায় না পেয়ে রংপুরে চলে আসি কিন্তু এসে দেখি ইসমাইল হোসেন বাসায় নাই তাই আমি ঠিক করে নিয়েছি টাকা না পেলে বাসায় যাবো না।আমার আসার খবর পেয়ে ইসমাইল হোসেন বাসা থেকে পালিয়েছে।তারা আমার সাথে কোন যোগাযোগ করছে না।ইসমাইল হোসেনের এ আর বি ইন্টারন্যাশনাল পোলট্রি ফিড্ ফ্যাক্টরী ছিলো তবে কোন কারনে প্রতিষ্ঠান টি শুরু হওয়ার আগেই বন্ধ হয়ে যায়।বছর দুয়েক আগে আবার মাহমুদ আইয়ুব মোকছেদ এর কাছে ‘ভাড়া’ দিয়ে ছিলো।
তবে ভাড়া দেওয়ার ২ বছর পার হলেও এখন প্রতিষ্ঠান টি বুঝে দেয় নি মাহমুদ আইয়ুব মোকছেদের হাতে।তাই সব শেষ প্রায় বান্ধ হয়েই অনসনের সিন্ধান্ত নিয়েছে মোঃ মাহমুদ আইয়ুব মোকছেদ।

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

© ২০১০-২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক মায়াবাজার.কম
Developed BY Rafi It Solution