বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন

খবরের শিরোনাম :
বিএনপি’র বিভাগীয় সমাবেশের দু’দিন আগেই রংপুরে পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষনা মটর মালিক সমিতি। ধর্মঘট উপেক্ষা করে রংপুরে বিভাগীয় সমাবেশ সফল করার ঘোষনা বিএনপি’র, সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন ব্যবসার পরিবেশ দিয়েছি, আপনারা দেশের কথা ভাবুন— ব্যবসায়ীদের প্রধানমন্ত্রী আ.লীগ প্রার্থীকে হারিয়ে জাপা নেতা জয়ী হারাগাছে মাদ্রাসার কাজ বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগ বহিষ্কৃত সেনা সদস্যের বিরুদ্ধে। সমাধান দিলো পুলিশ, হরিজন সেই কিশোরকে মিষ্টি খাওয়ানো হলো রংপুর সিটি নির্বাচনে মোস্তফাকে জাপার মেয়র প্রার্থী ঘোষণা রংপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র আব্দুর রউফ মানিককে জাপা থেকে অব্যাহতি পছন্দের ছেলেকে বিয়ে করায়, পরিবারের হয়রানি থেকে বাঁচতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন দম্পতি পাগলাপীর বাইক রাইডার্স এর মাধ্যমে নিরাপদ বৃদ্ধাশ্রমে খাবার বিতরণ।
রংপুর সিটি নির্বাচনে মোস্তফাকে জাপার মেয়র প্রার্থী ঘোষণা

রংপুর সিটি নির্বাচনে মোস্তফাকে জাপার মেয়র প্রার্থী ঘোষণা

নিউজ ডেক্সঃ
রংপুর সিটি করপোরেশন (রসিক) নির্বাচনে মেয়র পদে মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফাকে আবারও দলীয় প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের।

সোমবার (৩ অক্টোবর) সন্ধ্যায় রংপুর নগরীর সেন্ট্রাল রোডের দলীয় কার্যালয়ে জেলা ও মহানগর জাপার যৌথ কর্মীসভায় মেয়র প্রার্থী ঘোষণা দেন জি এম কাদের। এ সময় তিনি মোস্তফার হাত তুলে ধরে দলীয় সমর্থন ও মনোনয়ন দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এর আগে গত বছরের আগস্ট মাসে রংপুরে দলীয় কার্যালয়ে এসে বর্তমান মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফাকে সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে প্রার্থী ঘোষণা দিয়েছিলেন জাপা চেয়ারম্যান। মোস্তাফিজার রহমান দলের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি।

এর আগে সকালে রংপুরে পাঁচ দিনের সফরে এসে সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন জি এম কাদের। এ সময় জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় এই উপনেতা বলেন, সামনে নির্বাচন কিন্তু আমরা এখন পর্যন্ত কিছুই বুঝতে পারছি না। নির্বাচনে সব দল অংশ নেবে কি-না, নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে কি-না তাও বুঝতে পারছি না।

তিনি আরও বলেন, দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা আরও বেশি নাজুক। প্রবাসী আয় কমে যাচ্ছে। আমদানি ব্যয় বাড়ছে, রিজার্ভ কমে আসছে, সেখানে বিভিন্ন মেগা প্রকল্পের যে ঋণ তার বোঝা দেশ কতটুকু বইতে পারবে তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করছি। আগেও বলেছি দেশ দেউলিয়া হবার পথে। আমাদের অবস্থা শ্রীলংকার মতো হতে পারে।
দলের একাধিক নেতাকে বহিষ্কার ও রওশন এরশাদের সঙ্গে সম্পর্কের টানাপোড়েনে জাতীয় পার্টি ভাঙন ঝুঁকিতে রয়েছে কিনা জানতে চাইলে জি এম কাদের বলেন, জাতীয় পার্টিতে কোনো ভাঙন নেই। জাতীয় পার্টি সবচেয়ে বেশি শক্তিশালী ও ঐক্যবদ্ধ দল। দেশে এবং বিদেশে এ বিষয়টি সবাই লক্ষ্য করছে। সমস্ত রাজনৈতিক দল এবং বিদেশি শক্তিও আমাদের দিকে খেয়াল রাখছে। আমরা যা কিছু করছি দেশ ও জনগণের স্বার্থে করছি।

নির্বাচনে অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে জি এম কাদের বলেন, আমাদের নির্বাচনে যাওয়া না যাওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এটার ওপর আমাদের ভবিষ্যৎ রাজনীতির অস্তিত্ব নির্ভর করছে। তাই তৃণমূল থেকে দলের উচ্চপর্যায়ে নেতা-কর্মীদের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

© ২০১০-২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক মায়াবাজার.কম
Developed BY Rafi It Solution